ঢাকা, সোমবার ২১ অক্টোবর ২০১৯ | ৫ কার্তিক ১৪২৬

Live

১৫০ কেজি সার=৫০ কেজি সার+১০০ কেজি মাটি!

১১:২২, ১৭ জুলাই ২০১৯ বুধবার

নগরের পতেঙ্গায় দুটি গুদামে অভিযান চালিয়ে প্রায় ৪০০ টন মাটি মেশানো ট্রিপল সুপার ফসফেট (টিএসপি) সার জব্দ করেছে র‌্যাব। র‌্যাব-৭ এর সদস্যদের সঙ্গে নিয়ে সোমবার রাতে পতেঙ্গা থানাধীন টিএসপি গেটের খালপাড় হাদিপাড়া এলাকায় মেসার্স সিদ্দিক এন্টারপ্রাইজ ও মেসার্স রায়হান অ্যান্ড ব্রাদার্সের গুদামে এ অভিযান চালান জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তাহমিলুর রহমান।

অভিযানে সিদ্দিক এন্টারপ্রাইজের মালিক ওসমান গণি রিপনকে (৪১) আটক করে এক বছরের কারাদণ্ড এবং দুই লাখ টাকা জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। অভিযান চলাকালে তাঁর ভাই ও রায়হান ব্রাদার্সের মালিক ওমর ফারুক খোকন পালিয়ে যান।

অভিযান পরিচালনাকারী জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার তাহমিলুর রহমান বলেন, ‘পতেঙ্গায় টিএসপি সার কারখানা থেকে সরবরাহ করা বস্তা খুলে সারের সঙ্গে মাটি মেশানো হয় ওই দুটি গুদামে। এরপর সেই মাটি মেশানো সার বাজারজাত করা হয় সারাদেশে। গোপনে ওই সংবাদ পেয়ে আমরা র‌্যাবের সঙ্গে গুদাম দুটিতে অভিযান চালিয়েছি।’

তিনি বলেন, ‘প্রতি ৫০ কেজির বস্তায় ১০০ কেজি মাটি-পাথর মিশিয়ে দেড়শ কেজি ভেজাল সার বানাতো তারা। তারপর গোডাউনে নকল টিএসপির প্যাকেটে সংরক্ষণ করা হত।’

অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায়, সার ব্যবস্থাপনা আইন অনুসারে ওসমান গণিকে দুই লাখ টাকা জরিমানা এবং এক বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়। তিন বছর আগে একই অপরাধে তাকে ৬০ হাজার টাকা জরিমানা করেছিল ভ্রাম্যমাণ আদালত।

যে দুটি প্রতিষ্ঠানে অভিযান চালানো হয়েছে, তারা সারাদেশে প্রায় ৫০০ ডিলারকে টিএসপি সার সরবরাহ করে।

র‌্যাব ছাড়াও এনএসআই, টিএসপি সার কারখানার প্রতিনিধি ও কৃষি কর্মকর্তারা এ অভিযানে উপস্থিত ছিলেন।

কৃষি কাগজ/এস এম

সূত্রঃ কালের কন্ঠ