ঢাকা, মঙ্গলবার ০৭ এপ্রিল ২০২০ | ২৪ চৈত্র ১৪২৬

Live

বৈদ্যুতিক ফাঁদ পেতে বন্য হাতি হত্যা

১২:০১, ১৭ নভেম্বর ২০১৯ রোববার

লামা উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের কুমারী পূর্ব চাককাটা এলাকায় বৈদ্যুতিক তারের ফাঁদ পেতে একটি বন্যহাতি হত্যা করা হয়েছে। শনিবার সকালে মৃত হাতিটিকে দেখে স্থানীয় লোকজন বন বিভাগে খবর দেন।

 

লামা বন বিভাগের সদর রেঞ্জ কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন জানিয়েছেন, মৃত হাতিটির শুঁড়ে আঘাতের চি?হ্ন রয়েছে। ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের ইয়াংছা এলাকায় গত ৪ নভেম্বর একটি বাগানে একই কায়দায় বৈদ্যুতিক ফাঁদ পেতে আরেকটি হাতিকে হত্যা করা হয়েছিল বলে জানা গেছে।

কুমারী চাককাটা এলাকার অধিবাসী ও চৌকিদার আলী আকবর জানান, হাতির আক্রমণ থেকে আমন ধান রক্ষা করার জন্য রাত জেগে লোকজন জমি পাহারা দেন। শুক্রবার রাত ৯টার দিকে তিনিসহ স্থানীয় লোকজন হাতির চিত্কার শুনতে পান।

দেলোয়ার হোসেন নামে অপর একজন জানান, বাগান এবং ধান খেত রক্ষা করতে অনেকে কাঁটাতারের বেড়া দিয়েছেন। অভিযোগ উঠেছে কাঁটাতারের বেড়ায় বৈদ্যুতিক সংযোগ দিয়ে হাতি মারতে ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় ফাঁদ পাতা হয়েছে। হাতিটি যে স্থানে মারা গেছে শনিবার ভোরে সেখান থেকে কাঁটাতারের বেড়া সরিয়ে নেওয়া হয়েছে বলে নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে।

স্থানীয় ইউপির সদস্য মো. আলমগীর চৌধুরী জানান, এভাবে ফাঁদ তৈরি করে হাতি হত্যা অব্যাহত থাকলে এই বন্যপ্রাণীটি একসময় হারিয়ে যাবে।

লামা সদর রেঞ্জ কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন জানান, মৃত হাতিটির বয়স আনুমানিক তিন বছর। হাতিটির ময়নাতদন্ত করা হবে।