ঢাকা, সোমবার ২১ অক্টোবর ২০১৯ | ৫ কার্তিক ১৪২৬

Live

ইঞ্জিন চালিত নৌকায় মিলল ৭৫০ কেজি হরিণের মাংস, আটক ১

১১:৫৮, ৬ অক্টোবর ২০১৯ রোববার

বরগুনা পাথরঘাটার বলেশ্বর নদীর বিহঙ্গ দ্বীপ সংলগ্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৭৫০ কেজি হরিণের মাংস উদ্ধার করা হয়েছে। এ সময় একটি নাম বিহীন ইঞ্জিন চালিত নৌকাসহ আবদুস সোবহান (৫৫) নামে একজনকে আটক করেছে পাথরঘাটা দক্ষিণ স্টেশন কোস্টগার্ড।

গতকাল শনিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এই অভিযান চালানো হয়। প্রায় সাত ঘণ্টা অভিযান চালিয়ে আজ রোববার ভোর ছয়টার দিকে একটি নৌকায় হরিণের মাংসসহ ওই ব্যক্তিকে আটক করা হয়। আটককৃত আব্দুস সোবহান পাথরঘাটা উপজেলার চরদুয়ানী এলাকার মৃত হাচেন আলীর ছেলে।

কোস্টগার্ড দক্ষিণ স্টেশন কমান্ডার লেফটেন্যান্ট বিশ্বজিৎ দৈনিক আমাদের সময় অনলাইনকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, প্রায় সাত ঘণ্টা অভিযান চালিয়ে আজ ভোরে একটি নাম বিহীন ইঞ্জিন চালিত নৌকায় প্রায় ২০ মণ হরিণের মাংসসহ আবদুস সোবহানকে আটক করা হয়। পরে তাকে কোস্টগার্ড দক্ষিণ স্টেশনে নিয়ে আসা হয়।

আটককৃত আব্দুস সোবাহানের তথ্যমতে, ওই নৌকায় আরও চারজন ছিল। কোস্টগার্ডের উপস্থিতি টের পেয়ে হানিফা, সরোয়ার হোসেন, আ. রাজ্জাক ও আ. ছত্তার নদীতে লাফিয়ে পড়ে পালিয়ে যায়। তাদের সবার বাড়ি পাথরঘাটার বিভিন্ন এলাকার।

কোস্টগার্ড সূত্রে জানা যায়, সুন্দরবন চাঁন্দের স্বরের দরজার খাল এলাকা থেকে অন্তত ১৫টি হরিণ জবাই করে মাংস নিয়ে আসছিলেন শিকারীরা। এ ঘটনায় আটক আব্দুস সোবহানসহ পালিয়ে যাওয়া চারজনের বিরুদ্ধে বন্য প্রাণী সংরক্ষণ আইনে মামলা হয়েছে। আব্দুস সোবহানকে জেল হাজতে প্রেরণ করার প্রক্রিয়া চলছে।

এদিকে উদ্ধার হওয়া হরিণের মাংস কেরোসিন দিয়ে মাটি চাপা দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন পাথরঘাটা উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির।

কৃষি কাগজ/এস এম