ঢাকা, শুক্রবার ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৮ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬

Live

নভেম্বরে চালু হচ্ছে নতুন আরও দুটি ভিসা

১০:৩৮, ২৩ আগস্ট ২০১৯ শুক্রবার

অভিবাসন খ্যাত দেশ অস্ট্রেলিয়ায় স্থায়ী বসবাস ও কাজের সুযোগ নিয়ে আসছে নতুন দুটি ভিসা। চলতি বছরের নভেম্বরে চালু হতে যাচ্ছে এ নতুন স্কিলড রিজওনাল প্রভিশনাল ভিসা। এ ভিসায় দক্ষ অভিবাসী দেশটিতে অস্থায়ী ও স্থায়ীভাবে বসবাস ও কাজ করতে পারবেন। নতুন এ ভিসা প্রণয়নের লিখিত আইন জারি করেছে দেশটির অভিবাসন বিভাগ। একই সঙ্গে আগামী ১৬ নভেম্বর দেশটির বর্তমান প্রচলিত আঞ্চলিক ভিসা সাবক্লাস ৪৮৯ বাতিল করবে অভিবাসন বিভাগ। সাবক্লাস ৪৮৯ ভিসায় আবেদনের শেষ সময় আগামী ১০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত।

প্রচলিত রিজওনাল ভিসার বদলে নতুন ও পরিবর্তিত আবশ্যিক শর্ত নিয়ে চালু হবে সাবক্লাস ৪৯১ ও ৪৯৪ ভিসা। আর এ দুই ভিসাধারীরা অন্তত তিন বছর আঞ্চলিক শহরের বসবাসের পর স্থায়ী বসবাসের জন্য আবেদন করতে পারবেন সাবক্লাস ১৯১ স্থায়ী ভিসার জন্য।

 

প্রতিবছর প্রায় ১৪ হাজার আবেদন গ্রহণ করার কথা থাকছে নতুন সাবক্লাস ৪৯১ ও ৪৯৪ ভিসায়। এটি পয়েন্ট টেস্টভিত্তিক ভিসা। অর্থাৎ শিক্ষা, বয়স, অভিজ্ঞতা, ইংরেজি দক্ষতা ও বৈবাহিক অবস্থা ইত্যাদির ওপর ভিত্তি করে পয়েন্ট পাওয়া যাবে। বেশি পয়েন্ট অর্জনকারীদের ভিসা আবেদনের জন্য আমন্ত্রণ জানাবে অভিবাসন বিভাগ। ভিসার মেয়াদ পাঁচ বছর। নতুন ভিসায় থাকছে পাঁচ শরও বেশি পেশা। ফলে, আরও নতুন নতুন পেশায় অস্ট্রেলিয়ায় আসার সুযোগ তৈরি হতে চলেছে। সে সঙ্গে দেশটিতে অস্থায়ী বসবাসকারীদের অনেকেরও স্থায়ী বসবাসের জন্য আবেদনের সুযোগ তৈরি হবে।

প্রতীকী ছবি। সংগৃহীত

প্রতীকী ছবি। সংগৃহীতস্পনসর ও লেবার অ্যাগ্রিমেন্ট—এ দুটি ভাগের আওতায় চালু হবে নতুন স্কিলড রিজওনাল প্রভিশনাল ভিসাগুলো। অস্ট্রেলিয়ার সচল ও অনুমোদিত কোনো ব্যবসা দ্বারা মনোনীত হলে তবেই পাওয়া যাবে এ ভিসা। যা সাবক্লাস ৪৯৪ নামে চালু হবে। এ ছাড়া সরকারের সঙ্গে শ্রম চুক্তির মাধ্যমেও কোনো প্রতিষ্ঠান কাউকে নতুন ৪৯১ ভিসায় মনোনীত করতে পারবে।

এ ছাড়া দেশটির আঞ্চলিক শহরে ইতিমধ্যে যেসব অভিবাসীরা বসবাস করছেন তাঁরাও তাঁদের পরিবারের সদস্যদের স্পনসর করতে পারবেন আলাদাভাবে। আর এ নতুন দুটির ভিসায় তিন বছর মনোনীত রাজ্যে বসবাসের পর স্থায়ী বসবাসের জন্য আবেদন করা যাবে নতুন সাবক্লাস ১৯১ ভিসায়।

নতুন ভিসাগুলোতে অস্ট্রেলিয়ার যেকোনো রাজ্যের আঞ্চলিক শহরে আবেদন করা যাবে। তবে নতুন এ ভিসা নিয়ে দেশটির সিডনি, মেলবোর্ন, পার্থ, ব্রিসবেন ও গোল্ড কোস্ট মহানগর এলাকায় ভিসাধারীরা বসবাস করতে পারবেন না। এ ছাড়া এ ভিসায় মনোনীত পেশায় পূর্ণকালীন চাকরির সুযোগ থাকবে হবে। সেই সঙ্গে তিন বছরের বেশি পুরোনো নয়, এমন স্কিল অ্যাসেসমেন্ট ও ইংরেজি দক্ষতার সার্টিফিকেট থাকতে হবে। নতুন ভিসার আরও বিস্তারিত তথ্য প্রকাশ করবে অভিবাসন বিভাগ শিগগিরই।