ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১৪ নভেম্বর ২০১৯ | ৩০ কার্তিক ১৪২৬

Live

চরফ্যাশনে ইলিশ কেনার দায়ে ৪ জনকে ১ বছর করে কারাদণ্ড

১৭:৩১, ১১ অক্টোবর ২০১৯ শুক্রবার

মা ইলিশ রক্ষায় চলমান নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে বৃহস্পতিবার বিকালে দুলারহাট থানা এলাকার একটি খালে ট্রলার ভিড়িয়ে মা ইলিশ বিক্রি করা হচ্ছিলো। এ খবর পেয়ে উপজেলা মৎস্য অফিসারসহ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এবং পুলিশ ছুটে যায় সেখানে।

 

এফভি রাজিয়া সুলতানা নামের একটি ট্রলার ভিড়িয়ে প্রতি হালি ইলিশ ৬শ টাকা দরে বিক্রি করা হচ্ছিলো। কিন্তু ম্যাজিস্ট্রেট আর পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে তারা ট্রলার নিয়ে মায়া ব্রিজ সংলগ্ন খালে গা ঢাকা দেয়। পুলিশ সেখান থেকে মাছসহ ট্রলারটি আটক করে।

উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মারুফ হোসেন জানান, প্রায় বিশ মন ইলিশসহ ট্রলারটি জব্দ করা হয়েছে। জব্দকত মাছ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে ১২টি এতিমখানা ও হাফেজী মাদ্রাসায় বিতরণ করা হয়েছে। আটক ট্রলারটি দুলারহাট বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতির জিম্মায় রাখা হয়েছে।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো.সাইফুল ইসলাম জানান, নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে ১ হালি করে মা ইলিশ কিনে নিয়ে যাওয়ার সময় আটক করা হয় আমির হোসেন, কাশেম, রাকিব ও জসিম নামের ৪ ব্যাক্তিকে। তাদের প্রত্যেককে ১বছর করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

জানা গেছে, এদের বাড়ি নুরাবাদ ও আবদুল্লাহপুর ইউনিয়নে। দুলারহাট থানার ওসি মিজানুর রহমান পাটোয়ারী জানান, দণ্ডিত ৪ জনকে হাজতে সোপর্দ করা হয়েছে।

এছাড়া বুধবার দুপুর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত হাজিরহাট এলাকার কাংগটখালি কারিরপুল সংলগ্ন খালে এফভি আল্লার দান নামের একটি ট্রলার ভিড়িয়ে প্রতি হালি মা ইলিশ ৬শ টাকা দরে বিক্রি হয়েছে বলে জানা গেছে। বিষয়টির সত্যতা স্বীকার করে দুলারহাট থানার ওসি মিজানুর রহমান পাটোয়ারী বলেন, সেখানে পুলিশ পাঠানো হয়েছিলো। কিন্তু পুলিশ যাওয়ার আগেই তারা ট্রলার ছেড়ে চলে গেছে।

কৃষি কাগজ/এস এম