ঢাকা, রোববার ১৭ নভেম্বর ২০১৯ | ২ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬

Live

খাদ্যদ্রব্যের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় মূল্যস্ফীতি বেড়েছে

১২:৫৭, ১৬ অক্টোবর ২০১৯ বুধবার

সাইদ রিপন : পেঁয়াজ, আদা, রসুন, শুকনা মরিচ শাক-সবজি, মাছ, বয়লার মুরগিসহ অন্যান্য খাদ্য দ্রব্যের দাম ও চিকিৎসা সেবা, শিক্ষা উপকরণ, বিবিধ দ্রব্যাদি ও জ্বালানি কাঠ ইত্যাদির আগস্টের তুলনায় সেপ্টেম্বরে বৃদ্ধি পাওয়ায় মূল্যস্ফীতি বেড়েছে। মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভা থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বিবিএস) তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে মূল্যস্ফীতির হার ছিল ৫ দশমিক ৫৪ ভাগ, যা আগস্টে ছিল শতকরা ৫ দশমিক ৪৯ ভাগ। ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরে মূল্যস্ফীতির হার ছিল ৫ দশমিক ৪৩ ভাগ। অর্থাৎ ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরের তুলনায়ও এ বছরের সেপ্টেম্বরে মূল্যস্ফীতি বেড়েছে। বিবিএসের তথ্যতে আরও দেখা যায়, খাদ্য বহির্ভূত উপখাতে চিকিৎসা সেবা, শিক্ষা উপকরণ, বিবিধ দ্রব্যাদি ও জ্বালানি কাঠ ইত্যাদি উপ-খাতের দ্রব্য সামগ্রীর মূল্য আগস্ট মাসের তুলনায় সেপ্টেম্বর মাসে বেড়েছে।

সেপ্টেম্বরে খাদ্য ও খাদ্য বহির্ভূত উপখাতে মূল্যস্ফীতি হয়েছে যথাক্রমে ৫ দশমিক ৩০ ও ৫ দশমিক ৯২ ভাগ, যা আগস্টে ছিল যথাক্রমে শতকরা ৫ দশমিক ২৭ ও ৫ দশমিক ৮২ ভাগ। গ্রামীণ পর্যায়ে সেপ্টেম্বরে মূল্যস্ফীতি হয়েছে ৫ দশমিক ৪১ ভাগ, যা আগস্টে ছিল শতকরা ৫ দশমিক ৩৪ ভাগ। শহরে সেপ্টেম্বরে মূল্যস্ফীতি হয়েছে ৫ দশমিক ৮০ ভাগ, যা আগস্টে ছিল ৫ দশমিক ৭৫ ভাগ।

কৃষি কাগজ/এস এম